Home তথ্য প্রযুক্তি থ্রি-ডি প্রিন্টারেই রান্না করা যাবে খাবার!

থ্রি-ডি প্রিন্টারেই রান্না করা যাবে খাবার!

আশির দশকের মাঝামাঝিতে পিৎজা বা ডোনাটের মতো কিছু খাবার বা চকলেট প্রস্তুতে সহায়তার উদ্দেশে উদ্ভাবিত হয়েছিল বিশেষ প্রযুক্তির থ্রি-ডি প্রিন্টার। সে প্রিন্টারে ভোজনরসিকরা নিজেদের সুবিধা মতো যেকোনো আকার-আকৃতির আর বিভিন্ন নকশায় খাবার প্রস্তুত করতে পারেন। এর মাঝে পেরিয়ে গেছে অনেকদিন। প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে এবার আরও অনেক সুযোগ-সুবিধা যোগ হয়েছে এসব প্রিন্টারে।

আজকের দিনে বিশ্বের অনেক দেশেই বিভিন্ন রেস্তোরাঁ বা রান্না ঘরে শোভা পাচ্ছে থ্রি-ডি ফুড প্রিন্টার। বলা চলে, এখন যেকোনো খাবারই প্রস্তুত করা যায় এ প্রিন্টারে। কিন্তু এতোদিন ধরে একটি জায়গায় খামতি ছিল। কেবলমাত্র রান্নার আগের ধাপ পর্যন্ত অর্থাৎ কাঁচা খাবার বানানো যেতো থ্রি-ডি প্রিন্টারে।

কিন্তু সম্প্রতি এ প্রিন্টারে তাপযন্ত্র ব্যবহার করে সেদ্ধ করা বা রান্না হওয়ার মতো খাবার বানানো নিয়ে গবেষণা চলছে। আর সত্যি বলতে কী, সেই পথে অনেক দূর এগিয়েও গেছে একদল গবেষক। আগামী এক বছরের মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে খাবার রান্না করা যায় এমন প্রিন্টার বাজারজাত করা যাবে বলেও অনেকের ধারণা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক এ নিয়ে কাজ করছেন। তারা এমন প্রযুক্তির থ্রি-ডি প্রিন্টার উদ্ভাবনের চেষ্টা করছেন, যাতে করে মেশিনটি ভোক্তার চাহিদা অনুযায়ী একের পর এক খাবার সরবরাহ করতে পারে। এ ধরনের প্রিন্টার উদ্ভাবিত হলে আগামী দিনের মানুষের খাদ্যাভ্যাস অনেকটাই বদলে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কলাম্বিয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ল্যাবে এ নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছেন জোনাথন ব্লুটিঙ্গার ও তার সহকর্মীরা। তারা এমন একটি প্রিন্টার মেশিন উদ্ভাবন করেছেন, যেটি একইসঙ্গে খাবার প্রস্তুত ও তাপযন্ত্রের মাধ্যমে রান্নার কাজটি করবে। রান্নার কাজে দলটি ব্যবহার করছে বিশেষ প্রযুক্তির লেজার হিটিং সিস্টেম। যা প্রয়োজন মতো তাপ নিয়ন্ত্রণে সক্ষম।

ব্লুটিঙ্গার জানান, তারা এমন একটি সফটওয়্যার বানানোর চেষ্টা করছেন, যেটি ভোক্তার চাহিদা অনুসারে এক টানা কাজ করে যেতে পারবে। যে কেউ পছন্দ অনুযায়ী খাবারে ভিটামিন বা অন্য কোনো উপাদান বাড়িয়ে কমিয়ে ইচ্ছে মতো ঘরে বসেই বানাতে পারবেন। এছাড়া এরইমধ্যে এ গবেষক দল লেজার হিটিং সিস্টেম ব্যবহার করে বেশ কিছু স্ন্যাকস বানাতেও সক্ষম হয়েছে।

নতুন প্রযুক্তির এ রকম ফুড প্রিন্টারের ব্যবহার নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে চলছে নানা রকম কথা। কেউ কেউ এটা নিয়ে উত্তেজিত হলেও অনেকে আবার এটিকে মানুষের খাদ্যাভ্যাসে যন্ত্রের বাড়তি হস্তক্ষেপ হিসেবে দেখছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Must Read

নাটোরে ৬ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: নাটোরের বড়াইগ্রামে মজুত করে বোতলজাত সয়াবিন খোলা সয়াবিন হিসেবে বিক্রয় করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বাজারের বিভিন্ন দোকানে অভিযান...

লিবিয়ার ভূমধ্যসাগর উপকূলে ৫০০ বাংলাদেশি আটক

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: ভূমধ্যসাগরের উপকূল থেকে পাঁচ শতাধিক বাংলাদেশিকে আটক করেছে লিবিয়ার পুলিশ। ত্রিপোলির পূর্ব উপকূল থেকে ইউরোপে পাড়ি দেয়ার প্রস্তুতিকালে গত শনিবার...

পাকিস্তানকে সাবধান করলো তালেবান

দ্যা নিউজ বিডি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের অভ্যন্তরে পাকিস্তানের আর কোনো হামলা বরদাস্ত করা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে তালেবান। এক বিবৃতিতে রোববার আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোল্লা...

দেশে সড়ক দুর্ঘটনা-যানজটে বছরে ক্ষতি ১ লাখ ৭৫ হাজার কোটি টাকা

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: সড়ক দুর্ঘটনা ও ঢাকার যানজটের কারণে প্রতি বছর ১ লাখ ৭৫ হাজার কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়। এই ক্ষতির...

সুদানে দুই গোত্রের সংঘাতে নিহত ১৬৮

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: গোত্রীয় সংঘাতে সুদানের দারফুর অঞ্চলে ১৬৮ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০০ জন। এছাড়া...