Home অপরাধ ইয়াবা মাদকের অন্ধকার জগতে ‘ইয়াবা কুইন’ হিসেবেই পরিচিতি স্কুলছাত্রী

ইয়াবা মাদকের অন্ধকার জগতে ‘ইয়াবা কুইন’ হিসেবেই পরিচিতি স্কুলছাত্রী

 

‘আমি যখন ক্লাস এইটে পড়ি তখন রুমা আপা আমার মুখে ইয়াবা তুলে দেয়। অন্যদিকে অভাবের সংসারের দায় সারতে ও নেশা থেকে আমার জীবন রক্ষা করতে বাবা মা বাল্যকালেই আমাকে বিয়ে দেয়। কিন্তু ততক্ষণে আমি ইয়াবা কুইন।’

স্কুলে পড়তো মেয়েটি। কিন্তু কিশোরী বয়সেই মাদকে আসক্ত হয়ে, হয়ে যায় ইয়াবা কুইন।

গ্রেপ্তারের পর অন্ধকার জগতের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার চাঞ্চল্যকর বর্ণনা দিয়েছে কিশোরী।

যে বয়সে পড়াশোনা করে জীবন গড়ার কথা, সে বয়সেই মেয়েটি ইয়াবার নেশায় প্রচণ্ডভাবে আসক্ত হয়ে পড়ে। গডফাদারদের নির্দেশে ইয়াবা বহন করে নিয়ে যেত দূর-দূরান্তে। ইয়াবা মাদকের অন্ধকার জগতে সে ‘ইয়াবা কুইন’ হিসেবেই পরিচিতি লাভ করে।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোহাম্মদ শাহরিয়ারের সামনে সাংবাদিককের কাছে ওই কিশোরী বলে, “রুমা আপা আমার জীবনটা তছনছ করে দিয়েছে। আমি যখন ক্লাস এইটে পড়ি তখন সে আমার মুখে ইয়াবা তুলে দেয়। অন্যদিকে অভাবের সংসারের দায় সারতে ও নেশা থেকে আমার জীবন রক্ষা করতে বাবা মা বাল্যকালেই আমাকে বিয়ে দেয়।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার এই কিশোরীর বাবার টানাটানির সংসার মোটামুটি চলে যাচ্ছিল। মেয়েকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখতেন তার মা।

বাবার কাজের অর্থ থেকে পড়ালেখার খরচ কোনোরকমে যোগাড় হচ্ছিল। ২০১৫ সালে জেএসসি পরীক্ষা দিয়ে পাস করে সে। কিশোরী বয়সেই বাবা-মা তাকে বিয়ে দেন।

ট্রেনে স্বামীর সাথে ঢাকা যাওয়ার সময় তার পরিচয় হয় রুমা নামের এক মেয়ের সাথে। তার বাড়ি গাইবান্ধা শহরের ব্রিজ রোডে। রুমা তাকে তার বাড়িতে ( ঢাকায় ) থাকতে দেন, বলেন, “এখানে থেকে চাকরি খুঁজে নিও।”

তখনও এই কিশোরী বুঝতে পারেনি রুমার আসল উদ্দেশ্য। রুমা আস্তে আস্তে এই কিশোরীকে ইয়াবা সেবনে আগ্রহী করে তোলেন।

দেখতে দেখতে যাত্রাবাড়ির রুমার বাড়িতেই ইয়াবায় আসক্ত হয়ে পড়ে ওই কিশোরী। তারপর বাধ্য করা হয় তাকে নানা ধরনের অনৈতিক কাজ করতে।

এদিকে মেয়েটির স্বামী আর তার কাছে ফিরে আসেনি। এরপর গাইবান্ধায় নিজ এলাকায় ফিরে আসে সে। নিজের নেশার টাকার জন্য যোগাযোগ করা শুরু করে গাইবান্ধার ইয়াবা বিক্রেতাদের সাথে। জড়িয়ে পড়ে আন্ডার ওয়ার্ল্ডের সাথে। ইয়াবার টাকা যোগাড় করতে সে অসামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। ঝুঁকে পড়ে অপরাধ জগতের দিকে।

গাইবান্ধা শহর এমনকি বগুড়ায় তার যোগাযোগ সৃষ্টি হয় আন্ডার ওয়ার্ল্ডের গডফাদারদের সাথে। তাদের কথা মতো ইয়াবা বহন করে নিয়ে যায় দূর-দূরান্তে গ্রাহকদের কাছে। এলাকায় এই কিশোরীকে সবাই এক নামে চেনে।

পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর ওই কিশোরী জানায়, নেশার টাকা যোগাড় করার জন্যই বাধ্য হয়ে সে অসামাজিক কাজে জড়িয়ে পড়ে।

এদিকে এ খবর জানাজানি হওয়ার পর মেয়েটির বাবা নির্বাক। তার মেয়ে এমন হতে পারে তিনি ভাবতেও পারেন না। তার মেয়েকে এ পথ থেকে ফিরিয়ে আনতে সকলের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।

কিশোরী বলে, “কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমি এখন ইয়াবা কুইন। কয়জন আছে আমার মতো? আমার এ পাপের পথে কেউ ইচ্ছে করে আসে না। আমাকে এ পথে ঠেলে দেয়া রুমা আপাদের প্রতিরোধ করুন। না হলে আমার মতো অনেক কিশোরী মেয়ে আসল পথ হারিয়ে ফেলবে।”

সোমবার রাতে ওই কিশোরীসহ কয়েকজনকে আটক করার পর চাঞ্চল্যকর এসব তথ্য বেরিয়ে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Must Read

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা কমান্ডারসহ ৫ সন্ত্রাসী আটক

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) কমান্ডারসহ ৫ ক্যাডারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত...

দূষিত শহরের তালিকায় ফের শীর্ষে ঢাকা

দ্যা নিউজ বিডি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের অন্যতম ঘনবসতিপূর্ণ মহানগরী ঢাকা বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছে। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকার এয়ার কোয়ালিটি...

নারীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিষিদ্ধ করল তালেবান

দ্যা নিউজ বিডি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন্ন ভর্তি পরীক্ষায় নারী শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিষিদ্ধ করেছে তালেবান। এ নিয়ে তালেবান সরকারের পক্ষ থেকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে...

আজ বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় ঢাকা দ্বিতীয়

দ্যা নিউজ বিডি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের তালিকায় আজ ঢাকা দ্বিতীয়। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) স্কোর ২৪০ রেকর্ড...

নাশকতার অভিযোগে ৫ জামায়াত নেতাকর্মী আটক

দ্যা নিউজ বিডি অনলাইন ডেস্ক: কুড়িগ্রামের সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্যকুমরপুর ও ঘোগাদহ ইউনিয়নের ঘোগাদহ এলাকা থেকে নাশকতার অভিযোগে ৫ জামায়াত নেতাকর্মীকে আটক করেছে...